চলুন দেখে নিই Harry Potter মুভির মজার তথ্যগুলো

Harry Potter and the Goblet of Fire কে অনেকেই বইয়ের সেরা সংক্ষেপণ বলে থাকেন। তো চলুন দেখে নিই এই মুভির মজার তথ্যগুলো,
Harry Potter

১. এটা হ্যারি পটার সিরিজের প্রথম মুভি যেখানে হ্যারিকে দিয়ে মুভি শুরু হয়নি। হয়েছিলো দ্য রিডল হাউজ দিয়ে যেটা হ্যারি স্বপ্নে দেখেছিলো।

২. সিরিজের প্রথম মুভি যেখানে ডার্সলি ফ্যামিলি ছিলো না। অভিনয়শিল্পীদের অতিরিক্ত পারিশ্রমিক দাবি করা এবং রানিং টাইম কমাতে বাদ দেওয়া হয়।

৩. বইটা দীর্ঘ হওয়ায় স্টুডিও চেয়েছিলো মাসখানেক ব্যবধানে দুটো পার্টে রিলিজ দিতে। কিন্তু পরিচালক মাইক নিউয়েল না নাকচ করেন। এটার পরামর্শ দিয়েছিলেন ৩য় পার্টের পরিচালক আলফানসো কোয়ারন।

৪. জর্জ ও ফ্রেডের গবলেটে নাম দেওয়ার সময় হারমায়োনি বসেছিলো আর হাতে বই ছিলো। বইটা হ্যারি পটার সিরিজেরই ছিলো!!

৫. মুভির ড্রাগনগুলো তৈরি হয়েছিলো চেম্বার অব সিক্রেটসের বাসিলিস্কের পাপেট থেকে।

৬. ওয়ান্ডারওয়াটার দৃশ্যধারণের ট্যাংকটা ৬০*৬০ ফুট ছিলো এবং গভীরতা ছিলো ২০ ফুট। আড়াই মিলিয়ন লিটার পানিপূর্ণ ছিলো ট্যাংকটা।

৭. আন্ডারওয়াটার দৃশ্যধারণে ড্যানিয়েল র‍্যাডক্লিফকে মোট ৪০ ঘণ্টা ৩৮ মিনিট পানির নিচে থাকতে হয়। কখনো কখনো টানা ৩ ঘণ্টাও শ্যুটিং চলেছে।

৮. আন্ডারওয়াটার ফিল্মিং এর পর ড্যানিয়েল র‍্যাডক্লিফ দুই কানেই ইনফেকশন জনিত সমস্যায় ভুগেছে।

৯. বইয়ে পার্বতী এবং পদ্মা পাতিল দুজনই আলাদা হাউজের। একজন গ্রিফিন্ডর অন্যজন রেভেনক্ল কিন্তু মুভিতে দুজনকেই গ্রিফি দেখানো হয়।

১০. ইয়ুল বল সেট তৈরীতে ৯০ জনের ৪ সপ্তাহ সময় লেগেছিলো। গ্রেট হল Lurex এর আবারণে ছিলো।

১১. হারমায়োনির ইয়ুল বল ড্রেস তৈরীতে মাসখানেক সময় লাগে। কারণ কয়েকবার ডিজাইন, কালার পরিবর্তন করতে হয়েছিলো।

১২. ডান্স প্র‍্যাক্টিস যেখানে সবাই কয়েক সপ্তাহ ধরে করেছিলো সেখানে ড্যানিয়েল সময় নিয়েছিলো চারদিন।

১৩. ইয়ুল বলে হারমায়োনির এন্ট্রি দৃশ্যে শট নিতে গিয়ে প্রথমবার এমা ওয়াটসন পড়ে যায়।

১৪. ড্যানিয়েল র‍্যাডক্লিফকে প্রশ্ন করা হয়েছিলো বাস্তব জীবনে কাকে ইয়ুল বল পার্টনার হিসেবে চায়। ড্যান স্কার্লেট জনসন ও নাটালিয়া পোর্টম্যানের নাম উল্লেখ করেছিলো।

১৫. মুভিতে যে মিউজিক ব্যান্ড দেখানো হয় এর নাম ছিলো The Weird Sisters. কানাডার ব্যান্ড The Wyrd Sisters সাথে নাম মিলে যাওয়ায় তারা আইনি অভিযোগ করেছিলো মুভিটা কানাডায় যেনো মুক্তি না পায়। কিন্তু সফল হয়ে উঠেনি।

১৬. পার্সি উইজলি অভিনেতা ক্রিস র‌্যাঙ্কিনের সাথে সিরিজের চারটি মুভির চুক্তি হয়েছিলো। প্রথম তিনটিতেই উপস্থিতি ছিলো। ৫ম পার্টে এই চরিত্রের গুরুত্ব বেশি থাকায় গবলেট অব ফায়ার থেকে বাদ দেওয়া হয়।

১৭. পুরো সিনেমাজুড়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে ভিক্টর ক্রাম চরিত্রটা। ক্রামের স্ক্রিনটাইমও অনেক ছিলো। কিন্তু সংলাপ দুই লাইনের বেশি ছিলো না। মুভিতে ২০ টি শব্দেরও বেশি উচ্চারণ করেনি!!

১৮. ডাম্বলডোরের লাইব্রেরীর বইগুলো আসলে ফোনবুক ছিলো।

১৯. র‍্যালফ ফাইনেসকে ভল্ডিমর্ট চরিত্রের জন্য সব চুল কেটে ফেলতে হয়েছিলো। মাথায় প্রতিদিন ভেনিস দিয়ে পেইন্ট করতে হতো।

২০. গবলেট অব ফায়ার নির্মাণে এক বছরের বেশি সময় লাগে যা হ্যারি পটার সিরিজে প্রথম ঘটে।

আরো পড়তে পারেন,

Baaghi 2 2018: বলিউড মাসালা মুভি, সাথে দুর্দান্ত একশন ও ড্যাম গুড মিউজিক

The Next Three Days (2010): তিন সদস্যের একটি সুখী পরিবারের গল্প

12 Angry Men (1957) এই মুভি নিয়ে এক শব্দে বলা যায়, অসাধারণ!

#TEAM MLOBD 🇧🇩

kaspermoviesOpinionHarry Potter and the Goblet of Fire
চলুন দেখে নিই Harry Potter মুভির মজার তথ্যগুলো Harry Potter and the Goblet of Fire কে অনেকেই বইয়ের সেরা সংক্ষেপণ বলে থাকেন। তো চলুন দেখে নিই এই মুভির মজার তথ্যগুলো, ১. এটা হ্যারি পটার সিরিজের প্রথম মুভি যেখানে হ্যারিকে দিয়ে মুভি শুরু হয়নি। হয়েছিলো দ্য রিডল হাউজ দিয়ে যেটা হ্যারি স্বপ্নে...